গত ১৮ জানুয়ারী মঙ্গলবার আবু শরিফ কামরুজ্জামানের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নকলার গৃহহীন অসহায় মুক্তিযোদ্ধা শীতে কাঁপছে শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। যা পরবর্তীতে এই সংবাদটি দৈনিক খোলা কাগজ,দৈনিক খবরের ডাক,দৈনিক বাংলার নবকণ্ঠ,প্রতিদিনের স্বদেশ,দৈনিক প্রথম সংবাদ,স্বাধীন টাইম পরিবার,দৈনিক নিউজ ক্রাইম,সময় বাংলা টি ভি, দৈনিক কলম কথা অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়ায় নকলা উপজেলা প্রশাসন মোস্তাফিজুর রহমানের নজরে আসে। তিনি অল্প সময়ের মধ্যে ১৯ জানুয়ারী বুধবার সকাল ১১ টায় শেরপুরের নকলা পৌরসভার দরিপাড়া মহল্লার বীর মুক্তিযোদ্ধা সুরুজ্জামানের বসত ভিটা পরিদর্শন করেন।

পরিদর্শন কালিন সময়ে উপস্থিত ছিলেন, নকলা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক, দৈনিক কালের কণ্ঠ পত্রিকার প্রতিনিধি মোশাররফ হোসেন সরকার সহ নকলা প্রেস ক্লাবের সাংবাদিক গন এবং এলাকায় গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

পরিদর্শন কালিন সময়ে মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, এরকম মানবিক সংবাদ প্রকাশিত করায় অধম্য মেধাবী সংস্থার নির্বাহী পরিচালক অষ্ট্রেলিয়া প্রবাসি মানবিক আবু শরিফ কামরুজ্জামান সহ এবং নকলা প্রেস ক্লাবের সাংবাদিকদের মানবিক সংবাদ প্রকাশ করার জন্য ধন্যবাদ জানান এবং প্রসংশা করেন।
বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: সুরুজ্জামান অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ঘর পাওয়ার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য তিনি জরুরি ভিত্তিতে নির্ধারিত ফরমে ঘর প্রাপ্তির জন্য আবেদন করতে বলেন।

সেই প্রেক্ষিতে ১৯ জানুয়ারি বুধবার বিকাল ৪ টায় বীর মুক্তিযোদ্ধা সুরুজ্জামানের পক্ষে অসহায় মেধাবী সহয়তা সংস্থার সভাপতি শফিকুল ইসলাম,সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দীন ঘর প্রাপ্তির জন্য প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র নিয়ে নকলা উপজেলা প্রশাসন মোস্তাফিজুর রহমানের নিকট হস্তান্তর করেন।

মোস্তাফিজুর রহমান আরও বলেন, আমাদের সৌভাগ্য, এখনো দেশে এমন অনেক মুক্তিযোদ্ধা বেঁচে আছেন, যুদ্ধের স্মৃতিতে যাঁদের মরিচা পড়েনি। তাঁরা যদি তাঁদের সেই অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন, পরবর্তী প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে পারবে।

সেই স্বপ্নের বাড়ির আশ্বাস পেয়ে খুশিতে চোখের পানি ধরে রাখতে পারছিলেন না বৃদ্ধ বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: সুরুজ্জামান ।