শেরপুরের শ্রীবরদীতে  সোমেশ্বরী নদী পাড় হওয়ার সময় শোষণের টানে ভেসে গিয়ে জহির উদ্দীন ওরফে জহর (৭৩) নামে এক কৃষক নিখোঁজ হয়েছে। গতকাল ৩ অক্টোবর রবিবার রাত ৮ টার দিকে  সোমেশ্বরী নদীতে এই ঘটনা ঘটে।
নিখোঁজ কৃষক জহির শ্রীবরদী উপজেলার   রাণীশিমুল ইউনিয়নের খাড়ামোড়া গ্রামের মৃত ছায়েদ আলীর ছেলে।

পরিবারের সদস্য ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গত ৩ অক্টোবর রবিবার সন্ধ্যায় সোমেশ্বরী নদীর ওপাড়ে ধান ক্ষেত পাহারা দিতে যায় জহির উদ্দীন। রাতে তার পরিবারের লোকজন তাকে খাবার দিয়ে চলে আসে। কিন্তু সোমবার সকালে জহির বাড়িতে না ফেরায় পরিবারের লোকজন তাকে খোঁজাখুজি শুরু করে। এলাকাবাসীর ধারনা, নদী পাড় হয়ে বাড়ী ফেরার সময় পাহাড়ী ঢলের স্রোতে হয়ত তিনি ভেসে গিয়েছেন।

মুহূর্তেই নিখোঁজের খবর এলাকাবাসীর মাঝে ছড়িয়ে পড়লে লোকজন দল বেঁধে খোঁজাখোঁজি করে নদীতে তার গামছা ও খাবারের থালা-বাটি পড়ে থাকতে দেখতে পায়। কিন্তু জহির উদ্দীনের তখনও সন্ধান পাওয়া যায়নি।

জহিরের ভাই মহসিন আলী বলেন, ধান ক্ষেত পাহারা দিতে রবিবার রাতে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। কিন্তু আর বাড়িতে ফেরেনি। নদীতে তার গামছা ও থালা-বাটি পাওয়া গেছে।

শ্রীবরদী থানা অফিসার ইনচার্জ বিপ্লব কুমার বিশ্বাস বলেন, কৃষক নিখোঁজের খবর পেয়েছি। ওই এলাকায় মাইকিং করা হচ্ছে।