যশোরের কেশবপুর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ২০২ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার এবং একটি মোটরসাইকেল জব্দ করেছে। বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) রাতে উপজেলার বরণডালি কপোতাক্ষ সম্মিলনী ডিগ্রি কলেজ মোড় এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়।

মোটরসাইকেল ফেলে পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে গ্রেফতার করতে পারিনি পুলিশ। তবে মাদকের উদ্ধারের ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ভালুকঘর পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ উপ-পুলিশ পরিদর্শক আজিজুর রহমান, সহকারী উপ-পুলিশ পরিদর্শক ওবায়দুল্লাহ সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স নিয়ে বুধবার রাতে বরণডালাী এলাকায় মাদক উদ্ধার ও বিশেষ অভিযান পরিচালনাকালে কলারোয়ার দিক থেকে একটি মোটরসাইকেল দ্রুত গতিতে আসতে দেখে সন্দেহজনক হওয়ায় চালককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গতিরোধ করে। সে পুলিশের বাধা নিষেধ অমান্য মোটরসাইকেল না থামিয়ে চলে যায়।

বিষয়টি পুলিশের আরো বেশি সন্দেহ হওয়ায় তার পিছনে ধাওয়া করলে বরণডালী কপোতাক্ষ সম্মিলনী ডিগ্রি কলেজের সামনে কেশবপুর টু কলারোয়া সড়কের উপর সাতক্ষীরা-ল ১২-০৬০৭ নম্বরের লাল রংয়ের ১৫০ সি সি এ্যাপাচি মোটরসাইকেলটি ফেলে দ্রুত পালিয়ে যায়। সেখান থেকেই মোটরসাইকেলে থাকা একটি ব্যাগের ভেতর থেকে ২০২ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করেন।

এ ব্যাপারে কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ বোরহান উদ্দীন বলেন, মোটরসাইকেল সহ ২০২ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধারের ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে। মোটরসাইকেলটি থানা হেফাজতে রয়েছে। অজ্ঞাতনামা পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।