অনতিবিলম্বে গ্রাহকদের বকেয়া টাকা পরিশোধ করতে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের কাছে দাবি জানিয়েছেন আলেশা মার্টের ভুক্তভোগী গ্রাহকরা।

একই সঙ্গে আলেশা মার্টের চেয়ারম্যান ও তার পরিবারের সদস্যদের বিদেশ গমনে নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার ও তাদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানান তারা।

শুক্রবার (২৯ জুলাই) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনি মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানান আলেশা মার্ট কাস্টমার অ্যাসোসিয়েশন ও আলেশা মার্ট বিক্ষোভ ও আন্দোলনের গ্রুপের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন।

তিনি বলেন,ই-কমাসে অর্ডারকারী ৯০ শতাংশ গ্রাহক ছাত্রজনতা। আলেশা মার্টের চেয়ারম্যান খুবই সুনিপুণভাবে গ্রাহকদের সঙ্গে প্রতারণা করে তাদের কষ্টের টাকাগুলো আত্মসাৎ করার চেষ্টা করছেন।

তিনি ৩৪ বার ফেসবুক লাইভে এসে কেবল মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে সময়ক্ষেপণ করেছেন। কিন্তু গ্রাহকের কোনো লাভ হয়নি। আলেশা মার্ট চেয়ারম্যান এক বছর সময় পেয়েও গ্রাহকদের মিথ্যা আশ্বাস ছাড়া কিছুই দিতে পারেননি।

এছাড়াও ইতোমধ্যে আমরা বিভিন্ন সময় গ্রাহকের টাকা ফেরত দেয়ার ক্ষেত্রে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়েরও নিষ্ক্রিয়তা পর্যবেক্ষণ করেছি।