ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) সেন্টার ফর যাকাত ম্যানেজমেন্ট (সিজেডএম) কর্তৃক মেধাবী ও অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তনে এটির আয়োজন করা হয়।

‘সিজেডএম’ এর ম্যানেজমেন্ট কন্সালট্যান্ট ঈসা ফরাজীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভিসি প্রফেসর ড. শেখ আবদুস সালাম।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. মাহবুবুর রহমান ও ট্রেজারার প্রফেসর ড. আলমগীর হোসেন ভুঁইয়া। এছাড়া অতিথি উপস্থিত ছিলেন প্রক্টর ড. জাহাঙ্গীর হোসেন, টিএসসিসির পরিচালক প্রফেসর ড. রুহুল কুদ্দুস মো. সালেহ, আল হাদিস এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের প্রফেসর ড. মুস্তাফিজুর রহমান, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রফেসর ড. মো. আব্দুল বারী ও আল ফিকহ্ এন্ড লিগ্যাল স্টাডিজের সভাপতি ড. নাসির উদ্দীন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সিজেডএম এর সিনিয়র ম্যানেজার মনির ইবনে হাফিজ ভুঈয়া।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ড. শেখ আবদুস সালাম বলেন, যাকাতের মর্মার্থ হচ্ছে অভাব, দুঃখী, অসহায় মানুষের সম্মান ও মর্যাদা বাড়িয়ে দেওয়া। অসহায় মানুষের জন্য এটা প্রয়োজন, আর ধর্মে এটা ফরজ।

যাকাত আমাদের অর্থনীতিকে এগিয়ে নিতে পারে। আমরা যদি আমাদের উদ্বৃত্তটা দেশের কল্যাণে দিতাম তাহলে এতো ট্যাক্সের প্রয়োজন পড়তোনা।

তোমরা যারা যাকাত ফর ম্যানেজমেন্ট থেকে সিলেকশন হয়েছো তোমাদের অভিনন্দন। তোমরা কৃতজ্ঞতা স্বীকারের পাশাপাশি এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে দেশে সর্বোচ্চ স্বাক্ষর রাখবে এ আশা রাখি।

উল্লেখ্য, সেন্টার ফর যাকাত ম্যানেজমেন্ট কর্তৃক এ বছর সারা দেশের স্নাতক পর্যায়ে ৩ হাজার ৫৪৯ শিক্ষার্থীকে মাসিক বৃত্তি প্রদান করা হয়। যার মধ্যে আজকে কুষ্টিয়া অঞ্চলের ২৫৯ জনকে এ বৃত্তি প্রদান করা হয়।