গাজা উপত্যকায় ইসরাইলের বিমান হামলায় আশেপাশের বিভিন্ন এলাকা বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। স্থানীয় সময় শুক্রবার (৪ নভেম্বর) সেন্ট্রাল গাজার হামাস পরিচালিত শরণার্থী শিবির এলাকা লক্ষ্য করে এ হামলা চালানো হয়। এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানায় আল জাজিরা।

বৃহস্পতিবার গাজা থেকে ইসরাইলকে লক্ষ্য করে চালানো রকেট হামলার প্রতিক্রিয়ায় এ পাল্টা হামলা চালানো হয়েছে বলে জানিয়েছে ইসরাইলি সেনাবাহিনীর এক মুখপাত্র। এর আগে, বৃহস্পতিবার গাজা এলাকা থেকে ইসরাইলের তিনটি শহর কিসুফিম, এন হাশলোশা ও নিরীম শহর লক্ষ্য করে চারটি ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়।

যার মধ্যে একটি ক্ষেপণাস্ত্র ইসরাইলের আকাশ সুরক্ষা ব্যবস্থার মাধ্যমে থামিয়ে দেয়া হয়। বাকি তিনটি লক্ষ্যে আঘাত হানার আগে গাজা এলাকাতেই বিস্ফোরিত হয়। এদিকে হামাসের মুখপাত্র হাজেম কাসেম বলেন, গাজাতে এমন ক্ষেপণাস্ত্র হামলা ইসরাইলি আগ্রাসনের চরম উদাহরণ।

তাদের এমন আচরণে প্রমাণ হয়, তারা নিরীহ ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে উন্মুক্ত যুদ্ধ করতে চায়। কিন্তু তারা জানে না যে, তাদের এমন কর্মকাণ্ড আমাদের সংঘবদ্ধ হতে ব্যাপকভাবে উদ্বুদ্ধ করছে। ইসরাইলি এক প্রতিবেদনে বলা হয়, এ ঘটনার আগে পশ্চিম তীরের জেনিন শহরে সেনা অভিযান চালায় ইসরাইল।

সে সময় ইসলামিক জিহাদের সদস্য ফারুক সলামেহসহ আরও তিন ফিলিস্তিনিকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনার প্রতিক্রিয়াতেই বৃহস্পতিবার গাজা থেকে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছিল।