পাকিস্তানের করাচি পুলিশ সদর দফতরে বন্দুকধারীদের হামলায় ৯ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে পাঁচজন জঙ্গি। বাকি চারজন পুলিশ ও রেঞ্জার্স সদস্য। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১৮ জন।

শুক্রবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টা ১০মিনিটে করাচির শারিয়া ফয়সাল এলাকায় পুলিশ প্রধানের কার্যালয়ে এ হামলা চালায় বন্দুকধারীরা। এর পর প্রায় চার ঘণ্টার অভিযান চালিয়ে পাঁচতলা ভবনটি জঙ্গিমুক্ত ঘোষণা পুলিশ ও রেঞ্জারস সদস্যরা। খবর জিও নিউজের।

নিষিদ্ধ গোষ্ঠী তেহরিক-ই তালেবান পাকিস্তান (টিটিপি) এ হামলার দায়িত্ব স্বীকার করেছে। খবর বিবিসি। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অভিযান শুরু করলে তিন জঙ্গি বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিজেদের উড়িয়ে দেন। এছাড়া দুইজন গুলিতে নিহত হয়েছেন। হামলার ঘটনায় রেঞ্জারস (সীমান্তরক্ষী) ও পুলিশ সদস্যসহ চারজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ১৮ জন।

প্রায় ৪ ঘণ্টার অভিযানের পর শুক্রবার রাতে পুলিশপ্রধানের কার্যালয় জঙ্গিমুক্ত ঘোষণা করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সিন্ধু প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী মুরাদ আলী শাহ জানান, হামলার সময় পুলিশপ্রধান করাচিতে ছিলেন না। পুলিশপ্রধানের কার্যালয়ের আশপাশে বেশ কয়েকটি ভবন পুলিশ কর্মকর্তা ও তাদের পরিবারের সদস্যরা থাকতেন।

নাম না প্রকাশ করার শর্তে এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, হামলাকারীরা পুলিশের ইউনিফর্ম পরে অফিসে প্রবেশ করেছিল। এ ঘটনায় পাকিস্তানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী খাজা আসিফ জানান, শুধু শোকপ্রকাশ নয়, হামলাকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।