এই ঘটনাটি ভারতের আসাম রাজ্যের গুয়াহাটি শহরের। সেখানে বান্দারা কালিতা নামের এক গৃহবধূ পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে স্বামী ও শাশুড়িকে হত্যা করেছেন। আর এরপর তাদের দেহের অংশ খণ্ডবিখণ্ড করে ফ্রিজে ভরে রাখেন। খবর এনডিটিভির।

স্থানীয় পুলিশ জানায়, ওই নারীর পরকীয়ার সম্পর্ক ছিল। সম্প্রতি তিনি স্বামী অমরজ্যোতি দে ও শাশুড়ি শঙ্করি দেবীকে হত্যা করেন। এরপর তাদের মরদেহ খণ্ডবিখণ্ড করে ভরে রাখেন ফ্রিজে।

আরো জানায়, হত্যার তিন দিন পর স্বামী ও শাশুড়ির মরদেহের খণ্ডাংশ গুয়াহাটি থেকে প্রায় ১৫০ কিলোমিটার দূরে মেঘালয় রাজ্যের চেরাপুঞ্জি শহরে ফেলে দিয়ে আসেন ওই নারী ও তার প্রেমিক। পরে ওই নারীকে নিয়ে মরদেহের খণ্ডাংশগুলো উদ্ধার করা হয়।