ঘন ও লম্বা চুলের স্বপ্ন দেখেন আপনি? তা পূরণ হবে সহজেই। মেথি দানা চুলের জন্য খুব ভালো। মেথির হেয়ার টনিক ব্যবহার করুন নিয়মিত। কী কী উপকার পাবেন, কী ভাবে বানাবেন ও কী ভাবে ব্যবহার করবেন, জেনে নিন

চুলের বৃদ্ধিতে ম্যাজিকের মতো কাজ করে মেথিদানা। চুলের ডিপ কন্ডিশনিং করে। ভিতর থেকে পুষ্টির জোগান দেয়। চুলের গোড়া মজবুত করতে সাহায্য করে। এমনকী চুল পড়াও কমিয়ে দেয় মেথি দানা। চুলের যত্নে মেথি অনেকরকম ভাবেই ব্যবহার করা যায়। মেথির হেয়ার প্যাক যেমন ব্যবহার করতে পারেন, একইভাবে মেথির তেলও চুলে মালিশ করতে পারেন।

তবে আপনি কি জানেন বাড়িতেই আপনি মেথির হেয়ার টনিক বানিয়ে নিতে পারেন? এই হেয়ার টনিক আপনার চুলে ম্যাজিকের মতোই কাজ করবে। জেনে নিন কী উপকার পাবেন? কী ভাবে বানাবেন এবং কী উপকার পাবেন?

◻️ মেথি দানা কেন চুলের জন্যে উপকারী?

মেথিদানা চুলের জন্য খুবই উপকারী। এই দানায় প্রচুর পরিমাণে আয়রন এবং প্রোটিন আছে। যা চুলের বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এর মধ্য়ে আছে ফ্ল্যাভনয়েড এবং স্যাপোনিন। এই দুই উপাদান অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি এবং অ্য়ান্টি-ফাঙ্গাল হিসেবে কাজ করে। ন্যাশনাল লাইব্রেরি অফ মেডিসিনে প্রকাশিত গবেষণা পত্রে মেথির এই গুণের উল্লেখ করা হয়েছে।

তাই স্ক্যাল্পের প্রদাহ কমায়।
স্ক্যাল্পের কোনও সংক্রমণ সারিয়ে তুলতে সাহায্য করে।
এতে উপস্থিত আয়রন চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।
প্রোটিনের অভাবে চুল পড়া বাড়ে, মেথি দানা এই ঘাটতি মেটাতেও সাহায্য করে।

◻️ মেথি চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে? কী উল্লেখ গবেষণায়?

মেথি দানা চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে কিনা তা নিয়ে প্রচুর গবেষণা হয়নি। তবে বেশ কয়েকটি গবেষণাতে এরকম উল্লেখ করা হয়েছে। সাপ্লিমেন্ট হিসেবে গ্রহণ করলে চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে মেথি। একটি গবেষণায় এই উল্লেখ রয়েছে।

৫৩ জনের উপর এই গবেষণা করা হয়। প্রত্যেককে ৩০০ এমজি-এর ওরাল ডোজ দেওয়া হয়েছিল। ৬ মাস এই সাপ্লিমেন্ট দেওয়া হয়। এদের মধ্য়ে ৮০ শতাংশেরই চুলের বৃদ্ধি ছিল দেখার মতো।

◻️মেথির হেয়ার টনিক কী ভাবে বানাবেন?

মেথি আপনার চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। স্ক্যাল্পের স্বাস্থ্য ভালো রাখে, তাই চুল পড়ার হার কমাতেও খুব বেশি সময় লাগে না।

আপনার প্রয়োজন দেড় কাপ গরম জল। ২ টেবিল চামচ শুকনো মেথি দানা। ৫-৮ ফোঁটা কোনও পছন্দের এসেনশিয়াল অয়েল নিতে পারেন। তবে রোজমেরি অয়েল বা ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েলের গুণ বেশি।

এবার এই দেড় কাপ জলের মধ্য়ে মেথি দানা ভিজিয়ে রাখুন। ২৪-৪৮ ঘণ্টা এভাবেই ভিজিয়ে রাখতে হবে। তারপর একটি পাতলা কাপড়ে এই মেথিদানা ভিজানো জল ছেঁকে নিন। তারপর একটি স্প্রে বোতলে এই জল রেখে দিন। ওই মেথিদানা দিয়ে আপনি হেয়ার প্যাকও বানিয়ে নিতে পারেন। যাই হোক, স্প্রে বোতলের মেথি ভেজানো জলের মধ্য়ে আপনি কয়েক ফোঁটা রোজমেরি অয়েল মিশিয়ে নিন। আপনার হেয়ার টনিক তৈরি।

◻️কী ভাবে ব্যবহার করবেন?

এই ফর্মুলা আপনার চুলকে রুক্ষ বা তৈলাক্ত করে তোলে না। চুলের ডিপ কন্ডিশনিং করে। চুলের বৃদ্ধিও হয় দেখার মতো। শ্যাম্পু করার পরে চুলে এই হেয়ার টনিক লাগিয়ে নিন।

প্রথম ৩ সপ্তাহ, সপ্তাহে ৩-৪ দিন এই হেয়ার টনিক ব্যবহার করুন। তারপর থেকে সপ্তাহে এক দিন এই হেয়ার টনিক ব্যবহার করুন।

◻️ আমি কি প্রতিদিন চুলে মেথি ব্যবহার করতে পারি?

সপ্তাহে ২-৩ দিন মেথি দানা চুলে ব্যবহার করতে পারেন। কিন্তু প্রতিদিন ব্যবহারের কোনও প্রয়োজন নেই। নাহলে ক্ষতিও হতে পারে।

মেথির ব্যবহারে কি চুলে অকালপক্কতার আশঙ্কা থাকে?
মেথি চুলের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সাহায্য করে। চুলের বৃদ্ধিতেও সাহায্য করে। কিন্তু অসয়মে চুল পাকে না।

চুলে তেল দেওয়ার পরে কি মেথি প্যাক ব্যবহার করা যায়?
হ্যাঁ, ব্যবহার করতে পারেন।

এই প্রতিবেদনটি কেবলমাত্র সাধারণ তথ্যের জন্য, এটি কোনও ওষুধ বা চিকিৎসার অঙ্গ নয় আরও বিস্তারিত জানতে হলে বিশেষজ্ঞের সঙ্গে পরামর্শ করে নিন।​​