২০২২-২৩ অর্থবছরের নতুন বাজেটে স্টার্ট-আপ কোম্পানিগুলোর জন্য সুবিধা বাড়ানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (৯ জুন) সংসদে উত্থাপিত বাজেটে স্টার্ট-আপ উদ্যোক্তাদের আয়কর রিটার্ন দাখিল করা ছাড়া অন্য সব ধরনের ‘রিপোর্টিং’-এর বাধ্যবাধকতা থেকে অবাহতি দেয়ার প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল।

এছাড়াও স্টার্ট কোম্পানিগুলোর ওপর থেকে ব্যয়-সংক্রান্ত বিধিনিষেধ প্রত্যাহার ও টার্নওভার করহার ০.৬০ শতাংশ থেকে কমিয়ে ০.১ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে। সংসদে অর্থমন্ত্রী বলেন, বর্তমান যুগ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির (আইসিটি) যুগ।

বর্তমান সরকার আইসিটি খাতকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিচ্ছে। সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের স্বপ্নকে বহুমাত্রিক রূপ দেয়ার নিমিত্ত স্টার্ট-আপ উদ্যোগকে বিশেষ প্রণোদনা প্রদানের মাধ্যমে সম্প্রসারিত করা প্রয়োজন।

তাই প্রস্তাবিত বাজেটে স্টার্ট-আপ উদ্যোক্তাদের জন্য কেবল আয়কর রিটার্ন দাখিল ছাড়া অন্যান্য সব ধরনের রিপোর্টিংয়ের এর বাধ্যবাধকতা থেকে অব্যাহতি দেয়ার প্রস্তাব করেন অর্থমন্ত্রী।