লা লিগায় অপ্রতিরোধ্য বার্সেলোনা যেন একেবারেই অচেনা হয়ে উঠে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে। মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) দিবাগত রাতে ইতালিয়ান জায়ান্ট ইন্টার মিলানের মুখোমুখি হওয়ার আগে টানা ছয় ম্যাচ জয়ের আত্মবিশ্বাসী ছিল বার্সেলোনা।

বিপরীতে মৌসুমের শুরু থেকেই ধুঁকছে ইন্টার, সিরি’আতে আট ম্যাচের চারটিতেই হেরে নেমে গেছে নবম স্থানে। সান সিরোতে হাকান কালহানোগলু একমাত্র গোলে পরাজিত হয় জাভির শিষ্যরা।

ম্যাচের ৭২ শতাংশ সময় বল নিয়ন্ত্রণে রাখে পেদ্রিরা। গোলমুখে অবশ্য মাত্র সাতটি শট নিয়েছিল তারা। যার মধ্যে লক্ষ্যে ছিল দুটি। অন্যদিকে, স্বাগতিকরা গোলমুখে নেয়া পাঁচটি শটের মধ্যে দুটি থাকে লক্ষ্যে।

কালহানোগলুর নৈপুণ্যে ম্যাচের সপ্তম মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারত ইন্টার। ভেস্তে যেতে বসা একটি আক্রমণে আলগা বল পেয়ে প্রায় ৩০ গজ দূর থেকে বুলেট গতির শট নেন তিনি। সময়মতো লাফিয়ে কোনোমতো এক হাত দিয়ে বল ক্রসবারের ওপর দিয়ে বাইরে পাঠান বার্সেলোনা গোলরক্ষক।

এরপর একচেটিয়া বল দখলে রেখে খেলতে থাকে বার্সেলোনা। তবে লেভানদোভস্কি, রাফিনিয়ারা প্রতিপক্ষের ডি-বক্সে যথেষ্ট কার্যকর হতে পারছিলেন না। প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে লাউতারো মার্তিনেসের জোরাল শট রক্ষণে প্রতিহত হওয়ার পর সতীর্থের পাস পেয়ে ২৫ গজ দূর থেকে নিখুঁত শট নেন তুর্কি মিডফিল্ডার।

বল পোস্ট ঘেঁষে জালে জড়ায়। এতেই শেষ হয়ে যায় বার্সার ইন্টার পরীক্ষা। এ নিয়ে আসরে টানা দ্বিতীয় হারের পর বার্সেলোনা ৩ পয়েন্ট নিয়ে আছে তৃতীয় স্থানে।