জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার আগে বিভিন্ন অনুষদ বিভাগ ও ইনস্টিটিউটের কমিটি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ। ২২ নভেম্বর জবি ছাত্রলীগের সভাপতি মো. ইব্রাহিম ফরাজি  ও সাধারণ সম্পাদক এস এম আকতার হোসাইন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে আগ্রহী প্রার্থীদের জীবন বৃত্তান্ত জমাদানের আহ্বান জানানো হয়। জীবন বৃত্তান্ত জমা দেওয়া যাবে ২৫ থেকে ৩০ নভেম্বর বিকাল ৫টা পর্যন্ত। জবি ছাত্রলীগের পক্ষে জীবন বৃত্তান্ত গ্রহণ করবেন আবু জাফর ও মোঃ নিউটন।

সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নিজ হাতে গড়া সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই এই মাতৃভূমির সকেট, সংশয়, প্রয়োজন কিংবা উদ্ভাবনে তারুণ্যের দ্রোহ আর মুক্তির জয়গানে জয়-বাংলা স্লোগানে মুখরিত করেছে।

৫২-এর মহান ভাষা আন্দোলন, ৫৪-এর যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন, ৬২-এর শিক্ষা আন্দোলন, ৬৬-এর ছয়দফা, ৭০-এর নির্বাচন, ৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধ এবং স্বাধীনতা পরবর্তী সময় স্বৈরাচার বিরোধী প্রবল আন্দোলনে ছাত্রলীগের হাজারো নেতাকর্মী এদেশের মুক্তিকামী মানুষের জন্য মিছিলের সম্মুখভাগ থেকে সর্বদা নেতৃত্ব দিয়েছেন। গনতন্ত্র রক্ষা, মৌলবাদের বিরুদ্ধে সদা সোচ্চার আওয়াজ এবং এদেশের শিক্ষার্থী সমাজের সকল যৌক্তিক দাবি আদায়ের লড়াইয়ের মাধ্যমে দৃঢ় প্রত্যয় এবং তারুণ্যের স্বপ্ন বিনির্মানে শ্রেষ্ট বন্ধু হয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার এই বৃহৎ ছাত্র সংগঠন।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মানে এই বাংলার অবিকল্প সারথি বঙ্গবন্ধু তনয়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশকে আরও উন্নত, সমৃদ্ধশালী ও চতুর্থ শিল্প বিপ্লবকে সফল এবং ডেল্টা প্লান-২০৪১ বাস্তবায়নে একঝাঁক তরুণ মেধাবী, দক্ষ, শৈল্পিক, স্বচ্ছ এবং পিতা মুজিব ও মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় আদর্শিক, সংগ্রামী নেতৃত্ব নির্বাচনের উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়।

এই মর্মে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল অনুষদ, বিভাগ ও ইনস্টিটিউটে পদপ্রত্যাশীদের জীবন বৃত্তান্ত আহ্বান করা হয়েছে।

প্রয়োজনীয় সংযুক্তি : জীবন বৃত্তান্ত (২ কপি), পাসপোর্ট সাইজ ছবি (২ কপি), সর্বশেষ একাডেমিক সনদের ফটোকপি, জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি,  বিশ্বিবদ্যালয়ের একাডেমিক/হল পরিচয় পত্রের ফটোকপি,  সামাজিক, সাংস্কৃতিক বা অন্য কোনো সহশিক্ষা কার্যক্রমে। ব্যক্তিগত অর্জন/সম্পৃক্ততার সনদ বা স্বীকৃতি কপি। পরিবারের কেউ রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত থাকলে তার প্রত্যয়নপত্র রেফারেন্স হিসেবে জেলা/উপজেলা/ ইউনিয়ন পর্যায়ের আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ইউনিটের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের নাম, ঠিকানা এবং মোবাইল নম্বর।