প্রায় সকল খাটো মানুষই লম্বা হতে চান। আবার আমাদের সমাজে লম্বা মানুষদের বিশেষ কদর রয়েছে। তাই অনেকেই লম্বা হতে গ্রহণ করেন অনেক ব্যবস্থা। তেমনি এক অভিনব কায়দায় লম্বা হলেন যুক্তরাষ্ট্রের এক ব্যক্তি। এই ইচ্ছা পূরণে তার খরচ হয়েছে দেড় কোটি টাকারও বেশি।

উচ্চতা বড় কোনো ইস্যু ছিল না। কিন্তু এটি এমন একটি বিষয়টি ছিল যখন আমি তরুণ ছিলাম তখন থেকেই আমার মনে আসত। সে সময় সুযোগ হয়নি। কিন্তু এখন (বৃদ্ধ বয়সে) সেই সুযোগ আসায় কাজে লাগিয়েছি।

রয় কন

এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে এই তথ্য নিশ্চিত করে। এতে বলা হয়, লম্বা হতে যে ব্যক্তি দেড় কোটিরও বেশি টাকা খরচ করেছেন তার নাম রয় কন। বয়স ৬৮।

নিজের উচ্চতা বাড়াতে জটিল অস্ত্রোপচার করান তিনি। আর এজন্য খরচ করেন ১ লাখ ৩০ হাজার পাউন্ড। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ১ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। রয় কনের উচ্চতা ছিল ৫ ফুট ৬ ইঞ্চি।

এ নিয়ে হতাশ ছিলেন তিনি। এ কারণে উচ্চতা বাড়াতে পা লম্বা করার কঠিন ও কষ্টসাধ্য অস্ত্রোপচার করানোর সিদ্ধান্ত নেন। অস্ত্রোপচার শেষে এখন তার উচ্চতা দাঁড়িয়েছে ৫ ফুট ৯ ইঞ্চিতে। এদিকে রয় কনের জটিল এ অস্ত্রোপচারটি করেছেন কসমেটিক সার্জন ডাক্তার কেভিন দেবিপ্রসাদ। তিনি পা লম্বা করানোয় বিশেষজ্ঞ।

দেবিপ্রসাদ তার ক্লিনিকটি চালান লাস ভেগাসে। তার কাছে লম্বা হতে আসেন গুগল, মাইক্রোসফট, অ্যামাজন এবং মেটার মতো প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা। কেন বৃদ্ধ বয়সে এমন জটিল অস্ত্রোপচার করানোর সিদ্ধান্ত নিলেন? উত্তরে তিনি বলেন, ‘উচ্চতা বড় কোনো ইস্যু ছিল না। কিন্তু এটি এমন একটি বিষয়টি ছিল যখন আমি তরুণ ছিলাম তখন থেকেই আমার মনে আসত। সে সময় সুযোগ হয়নি। কিন্তু এখন (বৃদ্ধ বয়সে) সেই সুযোগ আসায় কাজে লাগিয়েছি।’